বাংলাদেশ খেলাফত আন্দোলন

খেলাফত পদ্ধতির সরকার দেশ ও জাতির জন্য কি করবে

আল্লাহ তা‘আলার সার্বভৌমত্বের ঘোষণা দেবে এবং কুরআন ও সুন্নাহর বিধানের পরিপূর্ণ বাস্তবায়ন করবে, তথা খেলাফত পদ্ধতির শাসন ব্যবস্থা চালু করবে।

বিশ্ববাসীর নিকট মহান আল্লাহ তা‘আলার হুকুম-আহকাম যথাযথভাবে পৌঁছাবে।

রাষ্ট্রের মুসলিম-অমুসলিম সকল নাগরিকের জান-মাল, ইজ্জত, আবরু সংরক্ষণের নিশ্চয়তা বিধান করবে। সকল নাগরিকের মৌলিক চাহিদা তথা-খাদ্য, বস্ত্র, বাসস্থান, শিক্ষা, চিকিৎসা ও নিরাপত্তা নিশ্চিত করবে।

সকল নাগরিকের অধিকার সংরক্ষণকল্পে ইনসাফ ভিত্তিক বিচার ব্যবস্থা দ্রুত বাস্তবায়ন করবে।

নারীর সম্ভ্রম ও শালীনতা রক্ষা এবং যথাযথ নারী অধিকার প্রদানের নিশ্চয়তা দেবে।

মহান আল্লাহ ও প্রিয় রাসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম এর বিধান মুতাবিক পরোপুরি পর্দার হেফাজত করে মহিলাদের সামাজিক কর্মকান্ডে অংশ গ্রহনের সুযোগ দেবে।

ইসলাম বিদ্বেষীদের সকল ষড়যন্ত্র নস্যাৎকল্পে মুসলিম জনসাধারণের অন্তরে দাওয়াত ও জিহাদের অনুপ্রেরণা যোগাবে।

খেলাফত পদ্ধতির শাসন ব্যবস্থা প্রতিষ্ঠা করা বর্তমান সময়ের সকল সমস্যার একমাত্র সমাধান। তাই খেলাফত পদ্ধতির শাসন প্রতিষ্ঠার মহান লক্ষ্যে হযরত হাফেজ্জী হুজুর (রহ:) কর্তৃক প্রতিষ্ঠিত বাংলাদেশ খেলাফত আন্দোলনে যোগ দিন।

সর্বশেষ আপডেট

শিক্ষা উপমন্ত্রীর ঔদ্ধত্যপূর্ণ বক্তব্য যুদ্ধ ঘোষণার শামিল : আল্লামা আতাউল্লাহ হাফেজ্জী

শিক্ষা উপমন্ত্রীর ঔদ্ধত্যপূর্ণ বক্তব্য যুদ্ধ ঘোষণার শামিল : আল্লামা আতাউল্লাহ হাফেজ্জী

শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল কর্তৃক ভাস্কর্যের বিরোধিতাকারী তৌহিদী জনতা...